Ain Guru's Profile

29
Points

Questions
9

Answers
6

  • Asked 6 days ago in Education.

    Advocate a legal practitioner. He is an agent of his client and an officer of the court at the same time. An advocate has a responsibility to his client as well as to the court. From 1972 advocates are being enrolled and regulated under the provisions of the Bangladesh Legal Practitioners and Bar Council Order of 1972 and Rules made thereunder. ss the viva voce examination in three attempts within a period of three years from the date of his /her written examination result.

    ***Enrolment Procedure:

    1.  Any Bangladeshi citizen passed LL.B (law degree) from any recognized University situated in Bangladesh or in abroad or was called to the Bar is entitled to be enrolled as Advocate by qualifying in the enrolment examination(MCQ, Written and Viva) held under the direction and supervision of the Enrollment Committee of the Bangladesh Bar Council.  And before appearing at the enrolment examination every person shall have to undergo pupilage for a period of 6(six) months under a practicing Advocate of at least 10 years standing in the profession. The Pupilage form must have to collect from Bangladesh Bar Council office.

    2.  The candidate also have to collect registration form fro the enrolment examination from Bangladesh Bar Council Office after the office declare for the issuing forms.  A dully filled up Registration Form prescribed by the Bar Council along with the contract of pupilage should  be submitted according to the instruction given there. Registration of the candidates for enrolment as Advocates shall remain valid for 5 (five) years. If the candidate fails to pass the written examination within 5 (five) years of the date of registration his/ her registration shall stand canceled.

    3. Every applicant for admission as an Advocate shall have to qualify in the M.C.Q. examination and pass written and viva voce examinations conducted by the Enrolment Committee of the Bar Council. The pre qualifying (M.C.Q.) examination shall be of 100 marks of 100 questions. A candidate qualified in the preliminary examination (M.C.Q.) by obtaining 50 marks shall eligible to appear in the written examination. The syllabus and standard of public University / P.S.C. shall be followed and the duration of the examination (M.C.Q.) shall be 1 (one) hour. The written examination shall be of one paper of 100 marks and the duration of the examination shall be of 4 hours. To qualify in the written examination a candidate shall have to obtain 50 marks to qualify in the written examination. Candidates who failed to pass the written examination shall have to qualify next M.C.Q. examination to appear in the written examination. After being qualified in the written examination candidates shall have to appear in viva voce examination. Pass marks of viva voce examination is 25 out of 50.

    4. Qualified Candidates will get chance to practice before the Lower courts of Bangladesh. Any  qualified candidate can choose to practice under any bar association of the Bangladesh.  For that after passing they have to contact to the chosen area bar association where he/she is interested to practice.

    *** Fees for Enrolment:

     

    Description Fees
     Registration  800.00
     Examination for enrolment as advocate  2400.00
     Enrolment Examination Late fee  200.00
     Examination for High Court enrolment as advocate  6000.00
    • 2 views
    • 1 answers
    • 0 votes
  • Asked on 01/10/2017 in Civil Law.

    মুসলিম আইনের ১৬৭ ধারায় (ডি এফ মোল্লা) দান বাতিল সম্পর্কে বলা হয়েছেঃ

    ***এই ধারার উপধারা ১ অনুসারে, দখল প্রদানের আগে যে কোনো সময়ে দাতা কর্তৃক হেবা বাতিল করতে পারে। কারণ দখল প্রদানের আগে দান আদৌ সম্পূর্ণ হয় না। সুতরাং দান বা হেবা বাতিল করতে হলে তা দখল অর্পণের আগেই করতে হবে।

    ***উপধারা ২ তে বলা হয়েছে যে দখল অর্পণের পর দান বাতিল করা যেতে পারে, তবে এই ক্ষেত্রে আদালতের ডিক্রি লাগবে।

    এছাড়া কিছু কিছু ক্ষেত্রে দখল অর্পণের পর দান প্রত্যাহার করা আর সম্ভব নয়। সেই অবস্থাগুলো হলোঃ

    ১। স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে এবং স্ত্রী কর্তৃক স্বামীকে যখন কিছু দান করা হয়;

    ২। যখন নিষিদ্ধ ধাপের মধ্যে সম্পর্কিত একজন অন্যকে দান করে (যেমন যখন বাবা তার সন্তানকে দান করেন);

    ৩। দানগ্রহীতা যখন মারা যাবেন;

    ৪। যে কোনো কারণেই হোক যখন প্রদত্ত বস্তুর মূল্য বেশি হবে অথবা এমনভাবে পরিবর্তিত বা রূপান্তরিত হবে যে তার আসন্ন আকৃতি শনাক্ত করা যাবে না;

    ৫।  যখন দাতা দানের বিনিময়ে কিছু গ্রহণ করবেন।

    ***উপধারা ৩ এ বলা হয়েছে দাতা কর্তৃক প্রদত্ত কোনো দান বাতিল করা যেতে পারে কিন্তু তার মৃত্যুর পর তার উত্তরাধিকারীরা ওই দান বাতিল করতে পারবেন না।

    ***উপধারা ৪ অনুসারে,  একবার দখল অর্পিত হলে আদালতের ডিক্রি ছাড়া প্রদত্ত দান বাতিল করা যাবে না। দান বাতিলের জন্য দাতার ঘোষণা কিংবা তা আবার গ্রহণের উদ্দেশ্যে কোনো মামলা করলে তা দানটি বাতিলের পক্ষে যথেষ্ট বিবেচিত হবে না। যতক্ষণ পর্যন্ত কোনো ডিক্রি প্রদান করা না হবে দানগ্রহীতা দানের বিষয়বস্তুটি ব্যবহার ও হস্তান্তর করতে পারবেন।

     

    • 3 views
    • 1 answers
    • 0 votes
  • Asked on 01/10/2017 in Employment Law.

    শ্রম আইন ২০০৬ অনুসারে একজন নারী শ্রমিক মা হওয়ার সময় মোট ১১২ দিন মজুরি ও অন্যান্য সুবিধাসহ ছুটি পাবেন।

    নারী শ্রমিক বাচ্চা হওয়ার আগে ৫৬ দিন বা ৮ সপ্তাহ ছুটি পাবেন।

    বাচ্চা হওয়ার পরও ৫৬ দিন বা আট সপ্তাহ ছুটি পাবেন।

    এ ছাড়া এই নারী শ্রমিক ছুটিতে যাওয়ার আগের তিন মাসে মোট যে মজুরি পাবেন তার দৈনিক গড় হিসেবে প্রসূতি কল্যাণ সুবিধা পাবেন।

    নারী শ্রমিক মোট ১১২ দিনের জন্য ভাতা পাবেন। এ ক্ষেত্রে রেজিস্ট্রার্ড ডাক্তারের কাছে থেকে সার্টিফিকেট নিয়ে আট সপ্তাহের মধ্যে সন্তান জন্মানোর সম্ভাবনার বিষয়টি মালিককে জানালে তিনি তিন দিনের মধ্যে ৫৬ দিনের প্রসূতি কল্যাণ ভাতা দিবেন।

    সন্তান হওয়ার পর মা শ্রমিক মালিকের কাছে প্রমাণ পেশ করলে, প্রমাণ পেশের তারিখ থেকে তিন দিনের মধ্যে বাকি ৫৬ দিনের ভাতা দেবেন ।

    ***তবে শর্ত থাকে যে এর আগে ওই প্রতিষ্ঠানে ঐ মা শ্রমিককে ছয় মাস চাকরি করতে হবে। এ ছাড়া সন্তান হওয়ার সময় মা যদি মারা যান, তাহলে তার সন্তান উত্তরাধিকারী প্রসূতি কল্যাণ ভাতা পাবে। সন্তানও যদি মারা যায় তাহলে তার স্বামী উত্তরাধিকারী ভাতা পাবে।

    • 5 views
    • 1 answers
    • 0 votes
  • Asked on 01/10/2017 in Employment Law.

    আপনাকে পদচ্যুত করতে হলে তিন মাসের নোটিশ দিবে এবং এ সময়ের মধ্যে নিয়মিত বেতন ও অন্যান্য পাওনা দিলেই কেবল আপনাকে  চাকরিচ্যুত করতে পারে। যদি তা করা না হয় তাহলে আপনি পাওনা চেয়ে আইনি নোটিশ প্রদান করেন। যদি নোটিশকালীন সময়ে পাওনা পরিশোধ না করে তাহলে শ্রম আদালতে মামলা করতে পারেন।

    • 3 views
    • 1 answers
    • 0 votes
  • Asked on 26/09/2017 in Fiscal Law.

    The  Income Year/financial year(FY ) is the previous year, it is the year in which you have earned the income. In Bangladesh Income Year starts from 1st July of every year and ends 30 June of next year that is a period of 12 months.  For example, if you have had an income between 1st July 2016 and 30th June 2017, then 2016-17 will be referred to as FY.

    And  the assessment year(AY) is the year in which your tax liability will be calculated on the previous year’s income and you file tax return forms. That is, it is the year in which the income that you have earned in the financial year that just ended will be evaluated. For example, if your financial year is from 1st July 2016 to 30 June 2017, then it is known as FY2016-17 and the assessment year for income earned during this period would begin after the financial year ends–that is on 1st July 2017. Hence, the assessment year would be AY2017-18.

     

    • 3 views
    • 1 answers
    • 0 votes
  • Asked on 26/09/2017 in Fiscal Law.

    Laws Related to Tax are:

    1. Income Tax Ordinance, 1984
    2. Finance Act (passes every year by the parliament)
    3. Amusements Tax Act 1922 (Taxes on betting and wagering under a licensed bookmaker)
    4. Land Development Tax Ordinance, 1976 (Taxes on agricultural, non-agricultural and other land)
    5. Motor Vehicles Tax Act, 1932
    6. Municipal Taxation Act, 1881 (empowers the government to prohibit the levy of municipal taxes payable by persons in the military, naval or  air-force service or by the government.
    7. Gift Tax Act, 1990
    8. Value Added Tax Act, 1991
    9. Travel Tax Act, 2003
    10. Wealth Tax Act, 1963 (Repealed)

     

     

     

    • 2 views
    • 1 answers
    • 0 votes